করোনাভাইরাস নিয়ে কিছু প্রকৃত সত্য ধারণা ও তার জবাব

Sport News

১.হ্যান্ড  ড্রায়ার  কি নতুন করোনাভাইরাস ধ্বংসের  করতে  কার্যকরী  ?

#না হ্যান্ডেল ড্রায়ার  নতুন  করোনাভাইরাস  ধ্বংসের কার্যকরী নয়।

#আপনার দুই হাত বারে বারে সাবান-পানি দিয়ে বা হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে পরিষ্কার করুন।

# হাত পরিষ্কারের পর পরিষ্কার টিস্যু বা কাপড় উষ্ণ এয়ার  ড্রায়ার দিয়ে হাত ভালোভাবে মুছে শুকিয়ে ফেলুন ।

২.আল্ট্রাভায়োলেট জীবাণুনাশক কি নতুন করোনাভাইরাস ধ্বংস করতে পারে?

# হাত বা শরীরের অন্য কোন অংশের জীবাণুমুক্ত করার জন্য আল্ট্রাভায়োলেট ব্যবহার করা উচিত নয় ‌।

# আল্ট্রাভায়োলেট ল্যাম্পের ব্যবহারে ত্বকের সমস্যা তৈরি হতে পারে।

# নতুন করোনাভাইরাস এ সংক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত করণের থার্মাল স্ক্যানার  কতটুকু কার্যকারী?

# থার্মাল স্ক্যানার দিয়ে জ্বরের সংক্রান্ত ব্যক্তিগত করা যায়।

# নতুন  করোনাভাইরাস  আক্রান্ত হওয়া ২থেকে ৭  দিনের মাঝে অসুস্থতাজনিত উপসর্গ যেমন জ্বর, কাশি ইত্যাদি দেখা যায়।

#এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার কারণে যদি কারো জ্বর আসে তবে থার্মাল স্ক্যানার এর সাহায্যে এই  জ্বরাক্রান্ত  ব্যক্তিকে শনাক্ত করা যায়। আক্রান্ত কিন্তু জ্বরের উপসর্গ নেই এমন ব্যক্তিকে ক্ষেত্রে  শনাক্ত  করা সম্ভব নয়।

৩.সারা গায়ে অ্যালকোহল বা ক্লোরিন ছিটিয়ে কি কোন নতুন করোনাভাইরাস মেরে ফেলা সম্ভব?

# না  করোনাভাইরাস  শরীরে প্রবেশ করলে অ্যালকোহল বা ক্লোরিন সারা গায়ে ছিটিয়ে নতুন করোনাভাইরাস মেরে ফেলা সম্ভব নয়।

# অ্যালকোহল বা ক্লোরিন জীবাণুনাশক হলেও যথোপযুক্ত নির্দেশনা ছাড়াই এগুলো ব্যবহার করা উচিত নয়। ‌

# এই সকল পদার্থ চোখ মুখ ইত্যাদিসহ কাপড়ের জন্য ক্ষতিকর কারণ হতে পারে।

# এ সকল জীবাণুনাশক ব্যবহারে সতর্ক হোন।

৪. প্রকৃত সত্যঃ ঠাণ্ডা আবহাওয়া ও তুষারপাত করোনা ভাইরাস কে ধ্বংস করতে পারে না?

# ঠান্ডা ও ভাই ও তুষারপাত করোনা ভাইরাস কে ধ্বংস করতে পারে একথা বিশ্বাস করার কোন কারণ নেই।

# বাইরের আবহাওয়া বা তাপমাত্রা যেমনই হোক না কেন মানব দেহের তাপমাত্রা ৩৬.৫ ডিগ্রী ও ৩৭ সেন্টিগ্রেড এর কাছাকাছি থাকে।

# এই ভাইরাস থেকে নিজেকে সুরক্ষার সবচাইতে কার্যকরী উপায় হল ঘন ঘন দুই হাত অ্যালকোহল ভিত্তিক বা  হ্যান্ড বার দিয়ে পরিষ্কার করা।

৫. প্রকৃত সত্যঃ গরম পানি দিয়ে গোসল করলে করোনা ভাইরাসকে প্রতিরোধ করতে পারে না?

# গোসলের পানির তাপমাত্রা যেমনই হোক না কেন মানব দেহের তাপমাত্রা ৩৬.৫ডিগ্রি ও ৩৭ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের কাছাকাছি থাকে।

#অত্যন্ত গরম পানি দিয়ে গোসল করলে বরন্ঞ পুড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

#এই ভাইরাস থেকে নিজেকে সুরক্ষার সবচাইতে কার্যকরী উপায় হলো ঘন ঘন দুই হাত পরিষ্কার করা। এর ফলে পরিষ্কার জীবাণুমুক্ত হয় ও অপরিষ্কার হাতে নাক-মুখ স্পর্শের কারণে যে রোগ হয় তা প্রতিরোধ করা যায়।

৬.প্রকৃত সত্যঃ চীন বা কোভিড ১৯  আক্রান্ত   দেশে অবস্থিত দ্রব্য সামগ্রী থেকে  করোনাভাইরাস  সংক্রমণ হয় না।

# যদিও নোবেল করোনাভাইরাস যেকোন পৃষ্ঠার উপরিভাগে পৃষ্ঠতলের ধরনভেদে কয়েক ঘণ্টা থেকে কয়েক দিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। তথাপি নড়ানো হয়েছে ভ্রমণের পড়ে বিভিন্ন ধরনের পরিবেশ ও তাপমাত্রা সংস্পর্শে এসে এমন পৃষ্ঠতলে ভাইরাস বেঁচে থাকার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ।

# যদি আপনার কোন পাএের  উপরিভাগ ভাইরাস সংক্রমিত বলে মনে হয় তবে জীবাণুনাশক দিয়ে তা পরিষ্কার করে ফেলুন।হাতের  সংস্পর্শে এলে দুই হাত সাবান পানি দিয়েধোওয়ে ফেলুন বা অ্যালকোহল ভিত্তিক হ্যান্ড বাদ দিয়ে পরিষ্কার করুন।

৭.প্রকৃত সত্যঃ মশার কামড়ে কোভিড ১৯  ছড়ায় না?

#মশার কামড়ে কোভিড ১৯  ছড়ায় এমন কোন তথ্য প্রমাণ এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

 #নোবেল করোনাভাইরাস শ্বাসতন্ত্রের রোগ সৃষ্টি করে এমন একটি নতুন ধরনের ভাইরাস যা সংক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি, কাশি ,কফ ইত্যাদির মাধ্যমে একজন থেকে কয়েকজনের ছড়ায়।

# নিজেকে সুরক্ষিত রাক্ষতে  দুই হাত সাবান পানি দিয়ে বা অ্যালকোহল ভিত্তিক হ্যান্ড দিয়ে পরিষ্কার করুন। পাশাপাশি হাঁচি-কাশির সময় নাক মুখ টিসু-কাপড় বা  বাহুর বাজে ডেকে রাখুন ব্যবহৃত টিসু-কাপড়  ঢাকনাযুক্তবিমে বা ব্যবহৃত কাপড় সাবান দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

# মশার কামড়ে করোনা ভাইরাস ছড়ায় এমন কোন তথ্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এখন পর্যন্ত দেয়নি ।

আরো বিস্তারিত জানতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) কর্তৃক করোনা ভাইরাস সুরক্ষা টিপস

করোনা ভাইরাসের প্রাথমিক লক্ষণ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *